মেনু নির্বাচন করুন

দর্শনীয় স্থান

ক্রমিক নাম কিভাবে যাওয়া যায় অবস্থান
মৌলভীবাজার জেলার পর্যটন আকর্ষণীয় স্থান ও ইহার বৈশিষ্ট্য সম্বলিত সচিত্র প্রতিবেদন ঢাকা থেকে বাস, ট্রেন যোগে মৌলভীবাজার জেলায় আসা যায়।
নয়নাভিরাম হামহাম জলপ্রপাত বাস, ট্রেন বা বিমান যেভাবেই যান না কেনো প্রথমে আপনাকে মৌলভীবাজার অথবা শ্রীমঙ্গল স্টেশনে নামতে হবে। সেখান থেকে যেতে হবে কমলগঞ্জ। যারা এ জায়গায় যেতে ইচ্ছা পোষণ করবেন তাদের কমলগঞ্জ অথবা শ্রীমঙ্গল শহর হতে যানবাহন ভাড়া করতে হবে ভোর ছয়টার মধ্যে। তাহলে চাম্পারার চা বাগানে কলাবনপাড়ায় পৌঁছতে পারেন সাড়ে সাত বা আটটার মধ্যে। কলাবনপাড়া হতে হামহাম জলপ্রপাতে যেতে-আসতে প্রায় ৫ ঘণ্টা সময় লেগে যায়। শ্রীমঙ্গল থেকে লাউয়াছড়া যাওয়ার জন্য সিএনজি ও জীপ রয়েছে। এছাড়া স্থানীয় ভানুগাছা বাসস্ট্যান্ড থেকে লাউয়াছড়া যাওয়ার লোকাল বাসও রয়েছে। লাউয়াছড়া বনের গাঁ ঘেঁষে আঁকা বাঁকা পাহাড়ি পথ, টিলা কাঠের গুড়ি দিয়ে বানানো সাঁকো দিয়ে ঘণ্টা খানেক হাঁটলেই আপনি পৌঁছে যাবেন কলাবানপাড়া। এছাড়াও কমলগঞ্জ পৌরসভার মোড় থেকে কলাবান পর্যন্ত দূর ২৪ কিলোমিটার। এই ২৪ কিলোমিটারের মধ্যে কুড়মা পর্যন্ত ১৪ কিলোমিটার পাকা রাস্তা এবং বাকিটা পথ কাঁচা। কলাবনপাড়ায় থেকে হাঁটার রাস্তা। প্রায় ৮ কিলোমিটারের মতো পাহাড়ি পথ শেষে হামহাম ঝর্ণার দেখা মিলবে।
বাইক্কা বিল

বাস, ট্রেন বা বিমান যেভাবেই যান না কেনো প্রথমে আপনাকে মৌলভীবাজার অথবা শ্রীমঙ্গল স্টেশনে নামতে হবে।

গ্রান্ড সুলতান টি রিসোর্ট এন্ড গলফ
লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান

 

দুরত্ব : মৌলভীবাজার জেলা শহর হতে ৩০ কিলোমিটার।

পর্যটন সুবিধা : বনবিভাগের একটি রেষ্ট হাউসসহ বিভিন্ন পাবলিক রেস্তোরা রয়েছে। এছাড়া রয়েছে পায়ে চলার ট্রেইল, ইকো-গাইড, তথ্য কেন্দ্র ইত্যাদি।

তথ্যসূত্র : বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ, সিলেট। সদর দপ্তর,মৌলভীবাজার।

 

মাধবপুর লেইক
হাকালুকি হাওড়
বাইক্কা বিল
মাধবকুন্ড জলপ্রপাত
১০ মৌলভীবাজার জেলার পর্যটন আকর্ষণীয় স্থান ও ইহার বৈশিষ্ট্য সম্বলিত সচিত্র প্রতিবেদন-১
১১ জান্নাতুল ফেরদৌস কমপ্লেক্স, মসজিদুল আউলিয়া খাজা শাহ্ মোজাম্মেল হক (রহ:)

গ্র্যান্ড সুলতান টি রিসোর্ট এন্ড গলফ্‌, পাঁচতারকা হোটেল থেকে ০৩ (তিন) কিলোমিটার দক্ষিণ দিকে মহাজিরাবাদ, এম আর খান চা বাগান রোড সংলগ্ন।



Share with :

Facebook Twitter